lucky lady charm 2 joc ca la aparate governor of poker 2 hacked bencb poker casa pariurilor aplicatie android download rotiri gratuite ordinea la poker dan bilzerian poker filmul ruleta destinului online subtitrat care sunt cuvintele la nivelul cazinou și noi bitcoin poker sites cum.se joaca poker mesaje de valentine's day bonus de bun venit fara depunere curse de cai jocri jocuri cu cai de curse poker tattoo design 0human0 poker unibet clasament mondial snooker poker shop cluj jocuri cu aparate cu poker cele mai bune joburi creeaza logo cruce online gratis fulltilt poker cele mai frumoase filme de craciun pariuri sportive forum jocuri cu carti de joc betano ro

শিশুকে বাচাতে গিয়ে গ্রেফতার হলেন শিশুর বাবা !

বরিশালের বাকেরগঞ্জে উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম খানকে তুচ্ছ ঘটনায় গ্রেফতার করে মিথ্যা অভিযোগে গ্রেফতার করে হাজতে প্রেরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত ২৪ শে এপ্রিল রবিবার দুপুর ১.৩০ মিনিটের দিকে খান আবুল কালামের বাচ্চা তাসকিন (৩) হঠাৎ ডায়রিয়া ও বমি করে অসুস্থ হয়ে পরলে তাকে বাকেরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। বাচ্চার মা ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে বাসায় আইভি স্যালাইন নিচ্ছে এঅবস্থায় হঠাৎ বাচ্চাটি দুই বার বমি এবং দুইবার পাতলা পায়খানা করে, বাচ্চাটি বাসায় বিছানায় ঢলে পড়ে, বাচ্চার এ অবস্থা দেখে আতংকিত হয়ে পরে তড়িঘড়ি করে বাচ্চাটিকে কাধের করে দুপুরবেলা প্রচন্ড গরম এবং লকডাউন থাকার কারণে কোন গাড়ি না পেয়ে,২ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান পরে জরুরি বিভাগে তখন কর্তব্যরত ডাক্তার মনিরুজ্জামান খানের কাছে গিয়ে বিনিত অনুরোধ করেন, বাচ্চাটিকে বাঁচাতে। কিন্তু কর্তব্যরত ডাক্তার বাচ্চাটিকে গুরুত্ব না দিয়ে হঠাৎ ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন আমার দিকে তাকান আমি মাক্স পড়া আপনার ম্যাস্ক কই, মাস্ক পরে আসেন নি কেন? আগে সেটা বলেন তারপর আপনার বাচ্চার ভর্তি নেবো কি নেবো না সেটা পরে দেখা যাবে। বাচ্চাটিকে অন্য এক মহিলার কাছে দিয়ে বাহির থেকে ম্যাস্ক কিনে দ্রুত চিকিৎসা সেবা দেবার জন্য বিনীত অনুরোধ করেন। তখন ডাঃ মনিরুজ্জামান খান বাচ্চা টিকে ভর্তি নিতে অপরাগতা প্রকাশ করেন । এক পর্যায় ভর্তি নিতে না পারলে ক্যানোলা পরিয়ে দেবার জন্য বিনীত অনুরোধ করেন বাবা আবুল কালাম । কিন্তু তার কথায় কর্নপাত না করে নিজেকে নিয়ে ব্যস্থ হয়ে যান ডাক্তার । পরে পরিস্থিতিতে বাধ্য হয়ে বাক তর্কে লিপ্ত হয়ে পরলে ঘটনার এক পর্যায় ডাঃ ক্ষিপ্ত হয়ে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে রুম থেকে বের করে দিতে চেষ্টা চালালে ঘটনাটি হাতাহাতিতে গড়ায়। পরবর্তীতে সেখানকার উপস্থিত সবাই ছুটে এলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

পরবর্তীতে আবুল কালাম সেচ্ছাসেবীদের ঘটনা বলেন পরে, সেচ্ছাসেবী সংগঠনের দায়িত্বে থাকা বাকেরগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মুশফিকুর রহমান দোলন সহ বাকেরগঞ্জ মানবাধিকার শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাজমুল হাসান নবীন সহ,বাকেরগঞ্জ যুব ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের সেচ্ছাসেবী সংগঠনের লোকজন এসে বিস্তারিত শুনে ডাঃ কে বুঝাতে চেষ্টা করলেও তিনি কোন কথা শুনতে নারাজ। বাকেরগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাসুদ আকন ডাক্তার মনিরুজ্জামান কে একাধিক বার বুঝাতে চেষ্টা করে তাতেও কোন কাজ হয়নি।

এবিষয়ে ডাক্তার মনিরুজ্জামান সংবাদ মাধ্যমকে জানান আমার সাথে আবুল কালাম খারাপ আচরণ করেছেন উপজেলা পরিবার পরিকল্পন কর্মকর্তার সাথে আলাপ করে থানায় মামলা করা হয়েছে।

বাকেগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলাউদ্দিন মিলন সংবাদ মাধ্যম কে জানান মামলার আসামি আবুল কালাম কে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রণয়ন করা হয়েছ।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button