1. sopeelabd@gmail.com : bdnewsworld :
  2. Nazmul241991@gmail.com : Nazmul Hassan : Nazmul Hassan
  3. somoykaltv@gmail.com : বিডিনিউজ ওয়ার্ল্ড : বিডিনিউজ ওয়ার্ল্ড
  4. proshantoKumaDas91@gmail.com : Proshanto Kumar Das : Proshanto Kumar Das
While G.P.A Breaths! - Debanjan Bhattacharya - BD News World
রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০১:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মরণফাঁদে রমরমা ব্যবসা। চোখ গুলো চেয়ে আছে অসহায়ত্বের দিকে ! আগামী ২৮ ডিসেম্বর বেতাগী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের দলীয় প্রার্থীর মনোনায়ন চূড়ান্ত হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রেস ক্লাবের অভিষেক অনুষ্ঠানে সাংবাদিক লেখক কবিদের মিলন মেলায় পরিণত প্রায়ত নাসিম ওসমান এমপি’র তনয় আজমেরীর সহধর্মিনী করোনায় আক্রান্ত, সকলের দোয়া প্রার্থনা ভাল রেজাল্ট নয় আপনাদের সন্তানকে ভাল মানুষ হিসেবে গড়ে তুলুন : জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন ইসলামের বিপক্ষে অবস্থান নিলে হেফাজত কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না : মা:আব্দুল আউয়াল লাইফ সাপোর্টে পরিবরহন নেতা মোক্তার হোসেন এমপি একেএম শামীম ওসমান দোয়া চেয়েছেন নারায়ণগঞ্জ ৩ আসনে রেজাউলের ওরা ১১জন’ কিংবা কায়সারের‘সেভেন স্টার বাহিনী নেই এখন খোকার আছে আম জনতা আলেম-ওলামাদের দেশে মূর্তি সংস্কৃতি চলতে দেয়া হবে না

While G.P.A Breaths! – Debanjan Bhattacharya

সাংবাদিক এর নাম
  • সংবাদটি প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩ জুন, ২০২০
  • ৬৪ বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

While G.P.A breaths!
গত ৩১শে মার্চে দেশজুড়ে এসএসসি এবং সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়। এই লেখাটায় কোন পাশ-ফেল বা প্লাসের হার অথবা তুখোড় শিক্ষার্থীর জয় বা পরাজয়ের কথায় যাবোনা। সাধারণ কথায় অতি সাধারণ চিন্তা ভাবনায় আসা যাক।
মাধ্যমিক পরীক্ষা এই ৫৬ হাজার বর্গমাইলের প্রতি শিক্ষার্থীর জন্যই বড্ড গুরূত্বপূর্ণ। সাধারণত এই পরীক্ষায় ভালোভাবে উত্তীর্ণ হওয়া শিক্ষার্থীরা একটা ভালো কলেজে পড়ার সুযোগ, মনভর্তি আনন্দ এবং একটা সুন্দর হাসিমুখ উপহার পায় এবং উপহার দেয় নিজেদের পরিবারকে।
এত সাধারণ বিষয়গুলোর মধ্যেও সবচে অসাধারণ ব্যাপারটি হলো “আত্মহত্যা”। আর এই আত্মহত্যাতেও অসাধারণ ব্যাপারটা হলো এক্ষেত্রে আত্নহননকারীর বয়স ১৬-১৭ বছর। ৩১ মার্চে ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার পর ১-২ জন না, বেশ কয়েকজন পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যার খবর শোনা যায়।
আরো অসাধারণ ব্যাপারটি হলো এতগুলো আত্মহত্যার মোটিভগুলোর মাঝে শুধুমাত্র ফেইল করা বা অনুত্তীর্ণ হওয়াই নেই, গ্রেডিং সিস্টেমে প্রায় ৪.৫০প্রাপ্ত শিক্ষার্থীও রয়েছে।
অর্থাৎ শুধুমাত্র সর্বোচ্চ ফলাফল না করতে পারার জন্য আত্মহত্যা।
এখন প্রশ্নে আসা যাক!
১)কেবল নিজের জীবন শুরু করা এই কিশোর-কিশোরীর নিজ ইচ্ছায় নিজের জীবন শেষ করা আসলেই এত সাধারণ?
২)শুধু শিক্ষাব্যাবস্থাই কি এর জন্য দায়ী? নাকি সমাজব্যাবস্থাও?
৩)শুধু কি করোনা ভাইরাস এর বড় হেডলাইনগুলোর নিচে চাপা পড়ে গেলো এই মৃত্যুর খবরগুলো?
৪)এর দায় কারা নিবে? কাদের নেয়া উচিৎ?
প্রথমত, অবশ্যই এই আত্মহননের গল্পগুলো এদেশে সাধারণ। কারণ বঙ্গদেশের পিতা-মাতা দের মস্তিষ্কের প্রতিটা নিউরনের রন্ধ্রে-রন্ধ্রে মিশে গেছে জি.পি.এ- ফাইভ মানেই তাদের সন্তান সফল, তা যেভাবেই হোক। সন্তানের সৃজনশীলতা, প্যাশন, লক্ষ্য, স্বপ্ন চুলোয় যাক, জি.পি.এ- ফাইভ মানেই সন্তান বাবা-মায়ের মুখে সূর্যের থেকেও প্রখর আলোকরশ্মি ফেলে তাদের মুখ উজ্জ্বল করতে সক্ষম।
দ্বিতীয়ত, এদেশের এই তথাকথিত মহান শিক্ষাব্যাবস্থা বিচার করার মতো সামান্যতম যোগ্যতাও আমার হয়নি, তাই পাঠকের কাছে ক্ষমা প্রার্থণা করছি। কিন্তু প্রতিবেশী, আত্মীয়-স্বজন, এবং বাবা-মায়ের ব্যার্থ স্বপ্ন চাপিয়ে দেয়া বা সমাজের লোকের প্রভাব একটা বড় কারণ হতে পারে। আমাদের সমাজে জি.পি.এ – ফাইভবাদ রেসিজমের মতোই গেথে গেছে বলে একান্ত আমার ধারণা।
তৃতীয়ত, দেশের এই জরুরী অবস্থাতে মিডিয়ার কাছে এখন এসব আন্ডাররেটেড গল্প শুনতে কেউ আগ্রহী নন, তাই হয়তো এখনো কোন টকশোতে দেশের তথাকথিত বিজ্ঞগণ এবিষয়ে তুমুল আলোচনার ঝড় তোলেননি।
এবং অবশেষে, এর দায় শিশুকাল থেকে কৈশর পর্যন্ত শিক্ষার্থীর মস্তিষ্কে “জিপিএ-ফাইভ ব্যাতীত জীবন বৃথা” নামের বীজ বপণকারী সমাজের প্রতিটা মানুষের। সে শিক্ষক হোক বা পিতা-মাতা অথবা প্রতিবেশী এবং আত্মীয়, দায় টা তাদেরই।
অবশ্য এখন তো আর দায় বা দোষ চাপিয়ে কেটে পড়ায় কোন লাভ নেই, একটা জীবনও কেউ ফিরিয়ে দিতে পারবেনা।
আমাদের সবচে বড় বদঅভ্যাস হলো আমরা ভুলে যাই। হ্যা আমি হরফ করে বলতে পারি মাত্র ১ মাস পর এই বিষয়টি আমাদের স্মৃতিশক্তি থেকে পূর্ণরূপে মুছে যাবে। তা যাইহোক, পিতা-মাতার কাছে একটাই অনুরোধ-
একটু ভেবে নিয়েন, আপনার সন্তানকে উচ্চমানের জি.পি.এ- শালী করতে তার আত্মশক্তির গলা টিপেই হত্যা করছেন না তো?
মনে রাখবেন, সব আত্মকে হত্যাকারী কিন্তু সবসময় “আত্ম” বা নিজ-ই হয়না!

সংবাদটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ পড়ুন ..
© All rights reserved © 2020 BD NEWS WORLD
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com